Tuesday, July 23, 2024
বাড়িখবরশীর্ষ সংবাদসমাপ্ত হলো খোয়াই তথ্য সংস্কৃতি দপ্তরের উদ্যোগে আয়োজিত সাত দিন ব্যাপী আদিবাসী...

সমাপ্ত হলো খোয়াই তথ্য সংস্কৃতি দপ্তরের উদ্যোগে আয়োজিত সাত দিন ব্যাপী আদিবাসী লোকনৃত্য ও লোকসংগীত কর্মশালার।

খোয়াই প্রতিনিধি ১৫ই মার্চ….শুক্রবার দুপুরে খোয়াই চা বাগান উচ্চ বিদ্যালয়ে সমাপ্ত হলো সাত দিনব্যাপী আদিবাসী লোকনৃত্য ও লোকসংগীত কর্মশালা ।৯ই মার্চ থেকে এই কর্মশালা শুরু হয়েছিল এই কর্মশালার উদ্যোক্তা ছিলেন খোয়াই তথ্য সংস্কৃতি কার্যালয় এবং সহযোগিতায় ছিলেন কালচারাল সেল অফ আদিবাসী এসোসিয়েশন অফ ত্রিপুরা।শুক্রবার এই কর্মশালার সমাপ্তি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন খোয়াই জিলা পরিষদের সভাধিপতি জয়দেব দেববর্মা,স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা শ্রীমতি অনুরূপা দেববর্মা,কালচারাল সেলের সভাপতি দীপঙ্কর ভট্টাচার্য,খোয়াই তথ্য অধিকারী বিশ্বজিৎ বনিক, তেলিমুড়া মহকুমা তথ্য অধিকার দুলাল দেববর্মা,গ্রাম প্রধান সুদর্শন সরকার,জনজাতি মোর্চার রাজ্য কমিটির সদস্য রমেন সাঁওতাল,সমাজ কল্যাণ দপ্তরের আধিকারিক সুজিত দাস সহ অন্যান্যরা। সাত দিনব্যাপী এই প্রশিক্ষণ শিবিরে ৩৫ জন আদিবাসী মেয়েরা লোকনৃত্য ও লোকসংগীত কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন তাদেরকে পাঁচ জন প্রশিক্ষক প্রশিক্ষণ দেন। এবং অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে পাঁচ জন প্রশিক্ষক কে উত্তরীয় পরিরে সংবর্ধনা দেন অনুষ্ঠানের মুখ্য অতিথি তথা খোয়াই জিলা পরিষদের সভাধিপতি জয়দেব দেববর্মা এবং ৩৫ জন শিক্ষার্থীদের হাতে মানপত্র তুলে দেন এবং অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত আদিবাসী মেয়েরা তাদের আদিবাসী নৃত্য প্রদর্শন করেন অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিদের সামনে। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে জিলা পরিষদের সভাধিপতি জয়দেব দেববর্মা বলেন ভারতবর্ষের প্রত্যেকটি অংশের মানুষের একটি কৃষ্টি ও সংস্কৃতি রয়েছে সেই সংস্কৃতির মাধ্যমে প্রত্যেকটি জাতি তাদের সংস্কৃতিকে বহন করে নিয়ে আসছে ।আর এই সংস্কৃতি যেন অবলুপ্ত না হয় এর জন্য সরকার যথেষ্ট ভাবে সাহায্য করছে ।এই ধরনের কৃষ্টি এবং সংস্কৃতি আমাদের ভারতবর্ষের মান এবং গৌরব কে অনেকদূর এগিয়ে নিয়ে যায় আর তার দ্বারা আমাদের প্রত্যেকটি জাতি পরিচিতি লাভ করে।কিন্তু বর্তমান সময়ে প্রত্যেকটি জাতির এ ধরনের কৃষ্টি এবং সংস্কৃতি হারিয়ে যাচ্ছে কিন্তু এই ধরনের সংস্কৃতি যাতে কালের গভীরে হারিয়ে না যায় তার জন্য রাজ্য সরকার, কেন্দ্র সরকারের পাশাপাশি তথ্য সংস্কৃতি দপ্তরের উদ্যোগে বিভিন্ন জায়গায় জন জাতিদের এই ধরনের কৃষ্টি এবং সাংস্কৃতি আদিবাসী লোকনৃত্য লোক সংগীতকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য এই ধরনের কর্মশালা করা হচ্ছে বিভিন্ন জায়গায়। যাতে করে আদিবাসীরা তাদের লোক সংস্কৃতিকে বাঁচিয়ে রাখতে পারে এবং দেশের অন্যান্য জায়গায় ছড়িয়ে দিতে পারে তাতে করে লোকসংস্কৃতির পরিধি যেমন বৃদ্ধি পাবে তদরুপ এই সংস্কৃতি বেঁচে থাকবে আগামী জন্মের জন্য।এছারা এইদিন অনুষ্ঠানে পশ্চিমা আদিবাসী অংশের জনগণের উপস্থিতি বেশ লক্ষ্যণীয় ছিল।

RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

twenty + five =

- Advertisment -spot_img

জনপ্রিয় খবর

সাম্প্রতিক মন্তব্য