Sunday, June 23, 2024
বাড়িখবরলাইফ স্টাইলত্রিপুরার লোকেদের জন্য জটিল চক্ষুরোগের চিকিৎসা এখন অনেক সহজ; সুপারস্পেশালিটি চক্ষু হাসপাতাল...

ত্রিপুরার লোকেদের জন্য জটিল চক্ষুরোগের চিকিৎসা এখন অনেক সহজ; সুপারস্পেশালিটি চক্ষু হাসপাতাল দ্য রেটিনা সেন্টার রাজ্যের স্বাস্থ্য বীমা প্রকল্পের তালিকাভুক্ত

আগরতলা – শরীর এবং স্বাস্থ্য সম্পর্কে ত্রিপুরাবাসীদের মধ্যে সচেতনতা এবং স্বাস্থ্যের যত্ন সংক্রান্ত তাদের প্রচেষ্টা সমাজের বিভিন্ন স্তরে নিয়মিত প্রত্যক্ষ করা যায়। এর প্রধান কারন ভারতের অন্যতম শিক্ষিত রাজ্য ত্রিপুরা। তবে ভূগোল-গত দুর্গমতার কারনে প্রয়োজন এবং ইচ্ছা থাকা স্বত্বেও ত্রিপুরার অধিবাসীরা অনেক সময়েই অত্যাধুনিক চিকিৎসা ব্যবস্থার সুযোগ নিতে পারেন না। এই অবস্থার কিছুটা হলেও সমাধান সূত্র চোখে পরছে। ত্রিপুরার রাজ্য সরকারের সক্রিয় ভাবে স্বাস্থ্য পরিষেবা বৃদ্ধির চেষ্টার সাথে সাথে হেলথ ইন্সুরেন্স স্কিমগুলির আওতায় বেসরকারি সুপার-স্পেসিয়ালিটি হসপিটালগুলি তালিকাভুক্ত করার প্রচেষ্টাও চলছে। এই প্রক্রিয়ার অংশ হিসাবে, গুয়াহাটি-র সুপরিচিত সুপার-স্পেশালিটি চক্ষুরোগ হসপিটাল ‘দ্য রেটিনা সেন্টার’ কে ত্রিপুরার স্বাস্থ্য বীমা পরিষেবার তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। নতুন বছর ২০২৪-এ ত্রিপুরাবাসী দের কাছে নিখুঁত চক্ষু পরীক্ষা ও চক্ষুরোগের অত্যাধুনিক চিকিৎসার জন্য এটি অত্যন্ত খুশির খবর। “মানুষকে সঠিক মূল্যে অত্যাধুনিক চক্ষু চিকিৎসার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য স্বাস্থ্য বীমার পরিষেবার গুরুত্ব অপরিসীম। উত্তরপূর্ব ভারতের পরিচিত এবং বিশ্বস্ত চক্ষুরোগ চিকিৎসার হসপিটাল হিসাবে, আমরা সাধারণ মানুষের কাছে পৌছতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আমাদের হসপিটাল কে ত্রিপুরার স্বাস্থ্য বীমা স্কিমের তালিকাভুক্ত করার জন্য আমরা ত্রিপুরা সরকার এবং সাধারণ মানুষের কাছে কৃতজ্ঞ।” ডঃ এস কে আহমেদ, প্রবীণ চক্ষুরোগ বিশেষজ্ঞ এবং প্রতিষ্ঠাতা, দ্য রেটিনা সেন্টার ডিজিটাল লাইফ স্টাইল এবং চোখের যত্নের গুরুত্ব আমাদের দৃষ্টি শক্তি দিয়েই মূলত আমরা বাইরের জগত কে উপলব্ধি করি। তাই স্বাভাবিক জীবন ধারণের জন্য এবং আর্থিক স্বাবলম্বীতার জন্য চোখের সুস্বাস্থ্য অতি প্রয়োজনীয়। ক্ষীণ দৃষ্টি বা চোখের অন্য কোন সমস্যা শুধু আমাদের বাইরের দুনিয়া কে দেখতে বাঁধা তৈরি করে তাই নয়, সাথে সাথে আমাদের কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রেও সমস্যা তৈরি করতে পারে। জীবনের সমস্ত ক্ষেত্রে স্মার্ট ফোন ও অন্যান্য ডিজিটাল টেকনোলজির ব্যবহার আজেকের দিনে চোখের গুরুত্ব আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। চোখের সমস্যার জন্য ডিজিটাল স্ক্রিন ব্যবহারে সাময়িক বাঁধা নিষেধ থাকলে এই অসুবিধা সহজেই অনুভব করা যায়। তাই আপাতদৃষ্টি তে চোখের কোন সমস্যা সামান্য মনে হলেও আমাদের উপেক্ষা করা উচিৎ নয়। সঠিক সময়ে রোগ নির্ধারণ করা গেলে, চোখের বেশির ভাগ সমস্যাই আজ নিরাময় করা সম্ভব। সাধারনের ক্ষমতার মধ্যে চক্ষু রোগের আধুনিক চিকিৎসা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির অভাবনীয় প্রসার চোখের বিভিন্ন সমস্যা নির্ণয় এবং চিকিৎসাকে অনেক বেশি সহজলভ্য করে তুলেছে। ভারতে এই ধরনের সুপার-স্পেসালিটি চক্ষু চিকিৎসার খরচও উল্লেখযোগ্যভাবে কমে গেছে। তা সত্ত্বেও, এই ধরনের চিকিৎসা এখনও বহু সাধারণ মানুষের বাজেটের বাইরে। সরকারি হাসপাতালগুলোতে যথাযথ প্রযুক্তি থাকলেও, সেগুলি কে প্রায়ই রোগীর উপচে পড়া ভিড় সামলাতে হয়। ফলে অনেক ক্ষেত্রেই সরকারী চিকিৎসা কেন্দ্রে সঠিক সময়ে পরিষেবা দেওয়া সম্ভব হয় না। এই ব্যবধান পূরণ করতে, ভারত জুড়ে কেন্দ্রীয় এবং রাজ্য সরকার গুলি স্বাস্থ্য বীমা প্রকল্পের অধীনে।
বিশিষ্ট বেসরকারি হাসপাতালগুলিকে তালিকাভুক্ত করছে। এতে আর্থিক ভাবে পিছিয়ে থাকা মানুষরা বিনা খরচে বা অতিস্বল্প মূল্যে আধুনিক চক্ষুরোগ নির্ণয় এবং চিকিৎসার সুযোগ পাবেন।

দ্য রেটিনা সেন্টার

দা রেটিনা সেন্টার আসামের গুয়াহাটিতে অবস্থিত একটি অত্যন্ত সুপরিচিত এবং বিশ্বস্ত সুপার-স্পেশালিটি চক্ষু হাসপাতাল। এই সংস্থার মূল মন্ত্র “উত্তরপূর্ব ভারতের সর্বত্র সাশ্রয়ী মূল্যে চক্ষুরোগের আন্তর্জাতিক মানের চিকিৎসার পরিষেবা প্রদান”। রেটিনা সেন্টার হাসপাতালটি চোখের সাধারণ সমস্যা থেকে শুরু করে জটিলতম চোখের রোগের জন্য অত্যাধুনিক ডায়াগনস্টিক সুবিধা এবং চিকিৎসার সেবা প্রদান করে।

এদের নিরলস প্রয়াস এবং পরিষেবার মানের জন্য, একাধিক সরকারী সংস্থা এবং বীমা সংস্থা রেটিনা সেন্টারকে তালিকাভুক্ত করেছে।

এমন কয়েকটি সরকারী সংস্থা হল-

CGHS (Govt scheme)

ESIC (Govt scheme)

PMJAY-Ayushman Bharat (Govt scheme)

ONGC (PSUs)

Airports Authority of India (PSUs)

Food Corporation of India (PSUs)

North-East Frontier Railways (PSUs)

ICAR (Indian Council for Agricultural Research) (PSUs)

NIPER (National Institutes of Pharmaceutical Education & Research) (PSUs)

Tea Board of India (PSUs)

GIPSA (General Insurance Public Sector Association) (PSUs)

Govt. of Tripura

  • Govt of Meghalaya

সরকারী সংস্থার সাথে সাথে একাধিক বেসরকারি বীমা সংস্থাও রেটিনা সেন্টার কে বিশ্বস্ত হসপিটাল হিসাবে ক্যাশলেস পরিষেবার তালিকাভুক্ত করেছে-

Medi Assist TPA

FHPL TPA

Raksha TPA

Paramount TΡΑ

Heritage Health TPA

Vidal Health Insurance

Bajaj Allianz Insurance

Future Generali Insurance

HDFC Ergo Insurance

ICICI Lombard Insurance

Max Bupa Insurance

Star Health Insurance

SBI General Insurance

  • Reliance General Insurance
RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -spot_img

জনপ্রিয় খবর

সাম্প্রতিক মন্তব্য