Thursday, May 30, 2024
বাড়িখবরশীর্ষ সংবাদবিকাশ সংকল্পের কাজে সীমাবদ্ধ থাকলে হবে না কাজ দেখাতে হবে ।এমনটাই মন্তব্য...

বিকাশ সংকল্পের কাজে সীমাবদ্ধ থাকলে হবে না কাজ দেখাতে হবে ।এমনটাই মন্তব্য করলেন খোয়াই চেবরির প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের দ্বার উদঘাটন কালে মুখ্যমন্ত্রী।

বাসুদেব ভট্টাচার্য খোয়াই ১২ই ডিসেম্বর….. মঙ্গলবার দুপুর একটা ৩০ মিনিট নাগাদ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ডক্টর মানিক সাহার হাত ধরে উদ্বোধন হল খোয়াই উত্তর চেবরী স্থিত দশ শয্যা বিশিষ্ট প্রাথমিক হাসপাতাল এবং স্টাফ কোয়াটারের।এদিন অনুষ্ঠানের শুরুতে দুইটি বিল্ডিং এর ফলক উন্মোচন করে অনুষ্ঠানের শুভারম্ভ করেন এবং প্রাথমিক হাসপাতালের প্রবেশ দ্বারে রাধা কৃষ্ণের মূর্তি রাখা হয়েছে সেই রাধা কৃষ্ণের চরণ তলে পুষ্পার্ঘ নিবেদন করেন।মুখ্যমন্ত্রী ছাড়া এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন খোয়াই জেলাশাসক চন্দ্রানী চন্দ্রন,কল্যাণপুরের বিধায়ক পিনাকি দাস চৌধুরী রাজ্য বিধানসভার মুখ্য সচেতক তথা বিধায়িকা কল্যাণী রায়,খোয়াই জিলা পরিষদের সভাধিপতি জয়দেব দেববর্মা স্বাস্থ্য দপ্তরের আধিকারি গণ জেলা পুলিশ সুপার সহ আরো অনেকে ।এরপর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন শুধু বিকাশ সংকল্পের কাজ করলেই হবে না ,তাছাড়া বিশেষ করে স্বাস্থ্য পরিষেবার ক্ষেত্রে কোন ধরনের গাফিলতি বরদাস্ত করা হবে না এমন টাই মন্তব্য করলেন খোয়াই উত্তর চেবরি স্হিত প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের উদ্বোধন কালে মঙ্গলবার। তাইতো উত্তর চেবরিতে ৪ কোটি ৮৬ লক্ষ টাকা ব্যয় করে ১০ শয্যা বিশিষ্ট প্রাথমিক হাসপাতাল গড়ে ওঠে পাশাপাশি টাইপ ওয়ান ক্যাটাগরির দুটি স্টাফ কোয়ার্টার বিল্ডিং তৈরি করা হয় এই স্বাস্থ্য কেন্দ্রের কর্মীদের জন্য।রাজ্যের চিকিৎসা ব্যবস্থা কে উন্নত করতে কেন্দ্র সরকার এবং রাজ্য সরকার মিলে একের পর এক কাজ করে চলেছে যার জন্য বিভিন্ন এলাকাতে দুর্ঘটনাগ্রস্থ রোগীরা যাতে অতিসত্বর চিকিৎসা ব্যবস্থা পায় তার জন্য বিভিন্ন জায়গাতে ট্রমা সেন্টার তৈরি করে দেওয়া হয়েছে এর ফলে আগরতলা জিবি হাসপাতালে যে ট্রমা সেন্টার রয়েছে তাতে অনেকটা চাপ কমবে বিভিন্ন জায়গার রোগীরা অতি দ্রুত চিকিৎসা পরিষেবা পাবে ওইসব এলাকার ট্রমা সেন্টার গুলিতে।এছাড়া তিনি এও বলেন চিকিৎসার পাশাপাশি শিক্ষা, খাদ্য, পানীয় জল,বাসস্থান সব গুলোই দরকার এর জন্য কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকার সবগুলি পূরণ করার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।যার জন্য কেন্দ্র সরকার একের পর এক প্রকল্প চালু করে চলেছে জনগণের স্বার্থে।সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি এও বলেন বিশেষ করে যেসব হাসপাতালে চিকিৎসা পরিষেবা নেবার জন্য রোগীরা আসে তাদের সাথে যেন চিকিৎসকরা ভালো ব্যবহার করে, কারণ একজন মনুষ্যরোগী ও দুর্ঘটনাগ্রস্ত রুগী শরীরে কি ধরনের যন্ত্রণা হয় ওই সময় তা তিনি ভালো করেই বুঝেন কারণ তিনি একজন চিকিৎসক ।তাই একজন চিকিৎসকের কথায় একটি রোগীর মনোবল অনেকটাই বেড়ে যায় যখন একজন চিকিৎসক সেই রোগীর সাথে ভালো ব্যবহার করে তিনি এ বলেন বর্তমান সময়ে রাজ্যের দুটি মেডিকেল কলেজ রয়েছে অদূর ভবিষ্যতে আরো মেডিকেল কলেজ তৈরি করার চিন্তা ভাবনা করছে সরকার।ইতিমধ্যে উদ্বোধন হয়ে গেল ডেন্টাল হসপিটালের যার পরিষেবার মান খুবই উন্নত ধরনের তাইতো রাজ্য সরকার চাইছে চিকিৎসা পরিষেবা ক্ষেত্রে রাজ্যকে আরো অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে যেতে ।ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি কঠিন অস্ত্র প্রচার রাজ্যে সফলভাবে করতে পেরেছে রাজ্যের চিকিৎসকরা নিউরোজিক্যাল অপারেশন ওপেন হার্ট সার্জারি মত অপারেশন রাজ্য হয়ে গেছে সফলভাবে তাইতো বর্তমানে দেখা যাচ্ছে রাজ্যের রোগীরা বহি রাজ্যের দিকে কম যাচ্ছে চিকিৎসার করার জন্য আস্তে আস্তে রাজ্যের চিকিৎসা পরিষেবার ওপর রাজ্যের জনগণের বিশ্বাস জন্মাচ্ছে ।গত কিছুদিন আগে চিকিৎসা পরিষেবা নিয়ে একটি তদন্তক্রমে দেখা যায় রাজ্যের জনগণ ভালো চিকিৎসার জন্য খুব কম পরিমাণে বহি রাজ্যে গেছে যা রাজ্যের জন্য একটি সুখবর বলা যেতে পারে।এই অনুষ্ঠান শেষে তিনি চলে যান কল্যাণপুর সেই জায়গায় যেখানে ১৯৯৬ সালে উগ্রবাদীদের দ্বারা কল্যাণপুর এলাকার ২৬ জন নিরীহ লোক শহীদ হয়েছিল ।এই শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে সেখানে একটি জনসভায় যোগদান করবেন। আজকের উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে চেবরী এলাকার সাধারণ জনগণ অনেকটাই উপকৃত হবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -spot_img

জনপ্রিয় খবর

সাম্প্রতিক মন্তব্য