Sunday, February 25, 2024
বাড়িখবরশীর্ষ সংবাদআসন্ন দূর্গা পূজা কে কেন্দ্র করে খোয়াই মহকুমা প্রশাসনের উদ্যোগে পুরাতন টাউন...

আসন্ন দূর্গা পূজা কে কেন্দ্র করে খোয়াই মহকুমা প্রশাসনের উদ্যোগে পুরাতন টাউন হলে বিভিন্ন ক্লাব কর্তৃপক্ষদের নিয়ে পূজার নিয়ম কানুন বিষয়ে এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

খোয়াই প্রতিনিধি ২৭ শে সেপ্টেম্বর…..আর কিছুদিন পর বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দূর্গা পূজা পালিত হতে চলেছে।তাই আসন্ন দুর্গাপূজাকে কেন্দ্র করে বুধবার বিকেলে খোয়াই পুরাতন টাউন হলে খোয়াই প্রশাসনের উদ্যোগে মহকুমা এলাকার বিভিন্ন ক্লাব ও সামাজিক সংস্থা এবং ব্যক্তিমালিকাধীন পুজোর সমস্ত কর্তৃপক্ষদের নিয়ে পুজো করার জন্য কিছু শর্তাবলী বলি নিয়ে এক মিটিং এর আয়োজন করা হয়। উক্ত মিটিং এ উপস্থিত ছিলেন খোয়াই মহকুমা শাসক বিজয় সিনাহা,মহকুমা পুলিশ আধিকারিক প্রসূন কান্তি মজুমদার,ডি সি দীপঙ্কর সরকার,পুর চেয়ারম্যান দেবাশীষ নাথ শর্মা,পঞ্চায়েত সমিতির চেয়ারম্যান শ্রীমতি টিংকু চক্রবর্তী,অগ্নি নির্বাপক দপ্তরের লোক স্বাস্থ্য দপ্তরের লোক সহ অন্যান্যরা।এই দিন মঞ্চে উপস্থিত সমস্ত প্রশাসনের আধিকারিকরা আসন্ন পূজার সম্বন্ধে সরকার দ্বারা প্রযোজ্য নিয়মাবলী নিয়ে আলোচনা করেন।শেষে এই বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন খোয়াই মহাকুমার ডেপুটি কালেক্টর দীপঙ্কর সরকার।আসন্ন পূজা কে কেন্দ্র করে প্রশাসনের পক্ষ থেকে তেইশ টি শর্তাবলী রাখা হয়েছে পুজো করার ক্ষেত্রে তার মধ্যে কয়েকটি হলো সরকারের নির্দেশ মতো পেন্ডেলের উচ্চতা রাখতে হবে এবং তার সমো সাময়িক প্রতিমার উচ্চতা ও রাখতে হবে, পচনশীল বস্তু দিয়ে পেন্ডেল ও প্রতিমা তৈরি করতে হবে , মূর্তি তৈরি করার ক্ষেত্রে কোন ধরনের কেমিক্যাল রং ব্যবহার করা যাবে না,প্লাস্টার অফ প্যারিস দিয়ে মূর্তি তৈরি করা যাবে না,পূজার বিভিন্ন সামগ্রী ফুল বেলপাতা ইত্যাদি জলাশয়ে ফেলে দেওয়া যাবে না ,যেসব ক্লাব গুলিতে দর্শনার্থীদের ভিড় হয় সেখানে ভলেন্টিয়ার এর ব্যবস্থা রাখতে হবে ।এই ধরনের তেইশটি নিয়মানুবর্তীতার মধ্যে দিয়ে ক্লাব গুলিকে পূজা করতে হবে,এই নিয়ম গুলোর মধ্যে যদি কোন ক্লাব যদি মান্যতা না দেয় সেই ক্ষেত্রে ২০০০ থেকে ১০০০০ টাকা পর্যন্ত জরিমানা করবে প্রশাসন ,,পাশাপাশি আগামী পাঁচ বছরের জন্য ঐ ক্লাবকে পুজো করার ক্ষেত্রে ব্যান্ড করে দেওয়াও হতে পারে।।উক্ত মিটিংয়ে পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মহাকুমা পুলিশ আধিকারিক প্রসূন কান্তি মজুমদার সমস্ত ক্লাব কর্তৃপক্ষদের কাছে অনুরোধ রাখেন আসন্ন পূজাতে চাঁদা নিয়ে যাতে কোন ধরনের জুলুম বাজি না করে যদি চাঁদা নিয়ে জুলুম বাজির কোন ধরনের অভিযোগ আসে তাহলে সেই ক্লাবকে পুজো করতে দেওয়া হবে না ।পাশাপাশি পুজোর সময় নিরাপত্তার বিষয়টা পুলিশ প্রশাসন শক্ত হাতে দেখাশোনা করবেন বলে জানান পুলিশ আধিকারিক প্রসূন মজুমদার।এসব আলোচনার পর বিভিন্ন ক্লাব কর্তৃ পক্ষদের কাছ থেকে পূজা করার নিয়ম নীতি বা কোন সমস্যা থাকলে সেই বিষয়ে আলোচনা করার জন্য আবেদন করলে, মঞ্চে গিয়ে বিভিন্ন ক্লাব কর্তৃপক্ষরা একটি বিষয় নিয়ে সবাইকে সরব হতে দেখা গেছে তাদের বক্তব্য প্রশাসন পুজো করার ক্ষেত্রে ২৩ টি নিয়ম লাগো করেছে ক্লাবগুলোর জন্য জনগণের স্বার্থে।অথচ দেখা যাচ্ছে প্রশাসন জনগণের স্বার্থে যে নিয়ম কানুন গুলো চালু করেছে সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে খোয়াই মহাকুমার বিভিন্ন অলি গলি সহ সমস্ত মহাকুমার রাস্তাঘাটের বেহাল চিত্র তুলে ধরেন মঞ্চে উপস্থিত প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও পুর পরিষদের চেয়ারম্যান দেবাশীষ নাথ শর্মার সামনেই।এক কথায় বিগত কিছুদিন ধরে পুরো পুরিদের বিভিন্ন রাস্তাঘাট নিয়ে বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় লেখালেখি চলছে ।পূজা সংক্রান্ত মিটিং চলাকালীন বিভিন্ন ক্লাব কর্তৃপক্ষরা প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও পৱর পরিষদের চেয়ারম্যানের চোখে আঙ্গুল দিয়ে জানিয়ে দিয়ে গেলেন যে খোয়াই মহকুমা এলাকার রাস্তাঘাটের কি হাল যেখানে পুজো দেখতে গেলে সাধারন মানুষ মন্ডপে পৌঁছানোর আগেই রাস্তায় হোঁচট খেয়ে পরে হাত-পা ভাঙ্গার উপক্রম ।সেই দায়িত্ব কি খোয়াই মহকুমা প্রশাসন নেবে না পুর পরিষদ নেবে সেই প্রশ্নটাই থেকে গেল উক্ত মিটিং এর মঞ্চে। আসলে আজকের শারদীয় দুর্গোৎসবকে শান্তিপূর্ণভাবে উদযাপন করার লক্ষ্যে ক্লাব কর্তৃপক্ষ এবং প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও জন প্রতিনিধিদের সামনে ডেপুটি কালেক্টর দীপঙ্কর সরকার শারদীয় দুর্গ উৎসব উদযাপন করার ক্ষেত্রে যেভাবে যুদ্ধকালীন প্রচারের মতো সরকারি নিয়মাবলী পাঠ করলেন, ঠিক এর উল্টোদিকে প্রশাসনিক কর্মকর্তা বিভিন্ন দপ্তর গুলি তাদের কাজ সঠিকভাবে প্রদান করলে খোয়াই মহকুমা এলাকার রাস্তাঘাটের এই কম বেহাল দশা ঘটতো না। আসলে দায়িত্ব চাপিয়ে দেওয়া যায় কিন্তু দায়িত্ব পালন করার পূর্ত দপ্তরের প্রশাসনিক কর্মকর্তার অনেকটাই অভাব রয়েছে বলে সাধারণ জনগণের অভিযোগ। যদিও মহকুমা এলাকার প্রত্যেকটা ক্লাব ও এনজিওর দাবি শারদীয় দুর্গোৎসব এর আগে রাস্তাঘাটের সংস্কার যেন করা হয়। এখন দেখার বিষয় শারদীয়া দুর্গোৎসব এর আগে খোয়াই মহকুমা এলাকার সড়ক গুলি মেরামতের জন্য কি পদক্ষেপ গ্রহণ করে।

RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -spot_img

জনপ্রিয় খবর

সাম্প্রতিক মন্তব্য