Wednesday, February 28, 2024
বাড়িখবরশীর্ষ সংবাদখোয়াই মিলনতন্তু সমবায়ের অফিস চত্বর থেকে নতুন টিউবওয়েল কলটি চুরি করে নিয়ে...

খোয়াই মিলনতন্তু সমবায়ের অফিস চত্বর থেকে নতুন টিউবওয়েল কলটি চুরি করে নিয়ে গেল চোরের দল

খোয়াই অফিসটিলা স্থিত মিলনতন্তু সমবায় সমিতি কার্যালয়ের ভিতর থেকে নতুন টিউবওয়েল কলটি খুলে নিয়ে গেল চোরের দল, এখানে উল্লেখ্য যে গত ২৫ বছর বাম জামানায় এই মিলনতন্তু সমবায় সমিতির কার্যালয়ে ছিলনা কোন ধরনের শৌচাগার কিংবা পানীয় জলের ব্যবস্থা, দীর্ঘ বছর দুর্ভোগের মধ্যদিয়ে নিজেদের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন সমিতির কর্মচারী সহ উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা। ২০১৮ সালে সরকার পরিবর্তনের পর তথা রাজ্যে বিজেপি সরকার প্রতিষ্ঠিত হবার পর এই দপ্তরের চেয়ারম্যান পদে দায়িত্ব গ্রহণ করেন খোয়াই জাম্বুরা এলাকার বিজয় কুমার দেবনাথ তিনি দায়িত্ব পাবার পর খোয়াই পুর পরিষদের কাছে বিশেষ ভাবে আবেদন করেন যাতে খোয়াই পুর পরিষদের মাধ্যমে খোয়াই অফিসটিলাস্তিত মিলনতন্তু সমবায় সমিতির কার্যালয়ে শৌচালয় ও পানীয় জলের ব্যবস্থা করেদেন সেই মোতাবেগ গত মাস কয়েক আগে পুর পরিষদ নির্মাণ করেদেয় শৌচাগার। এবং পানীয় জলের জন্য বসানো হল একটি টিউবওয়েল কল। কিন্তু গত মঙ্গলবার রাতে ওই টিউবওয়েল কলটি খুলে নিয়ে যায় চোরেরদল। পরের দিন সকালে কর্মীরা অফিসে এসে দেখতে পায় টিউবওয়েল কলটি নেই সাথে সাথে খবর দেওয়া হয় দপ্তরের চেয়ারমেন বিজয় কুমার দেবনাথ সহ স্থানীয়দের , বিজয় কুমার দেবনাথ ঘটনাস্থলে গিয়ে দপ্তরের উচ্চপদস্থ আধিকারিকের সাথে কথা বলে খোয়াই থানায় একটি লিখিত অভিযোগ জানান,খোয়াই থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে একটি মামলা হতে নিয়ে তদন্ত শুরু করেছেন বলে জানা যায়। এখানে যদিও দেখা গেছে পুর পরিষদ শৌচালয় এবং পানীয় জলের জন্য কল বসালেও পুর পরিষদের পক্ষ থেকে সেই শৌচালয়টি সরকারিভাবে মিলনতন্তু সমবায় দপ্তরের হাতে হস্তান্তর করা হয়নি। যেই উদ্দেশ্যে শৌচালয়টি তৈরি করা হয়েছিল তার সঠিক ব্যবহার করতে পারছে না সমবায় সমিতির কর্মচারীরা। শুধু কল নয় আগামী দিন সেই শৌচালয়ের দামি দামি জিনিসগুলিও চুরি হবার সম্ভাবনা রয়েছে বলে অভিমত ব্যক্ত করে এলাকাবাসী। কারণ ঠিকেদার সুচলায় তৈরি করার পর একটি কমদামি তালা মেরে সেই চাবি পুর পরিষদের বস্তু কারের কাছে দিয়ে দেয় ব্যস্তকার সেই চাবি সমবায় সমিতিকে হস্তান্তর করছে না বলে জানা যায়।অন্যদিকে এলাকাবাসীর অভিযোগ মিলনতন্তু সমবায় সমিতি কার্যালয়টির বাউন্ডারি বিহীন এবং,নির্জন এলাকা হওয়ার সুবাদ প্রতিদিন অফিস বন্ধের পর সন্ধা ঘনিয়ে আসার সাথে সাথেই অফিস চত্বরে স্থানীয় কিছু উশৃংখল যুবক মদের আড্ডায় মিলত হয় এবং গভীর রাত পর্যন্ত চলে সেই মদের আসর । এলাকাবাসীর দাবী পুলিশ যদি এই ঘটনার সঠিক ভাবে তদন্ত করেন তাহলে এই ঘটনার সাথে যারা জড়িত রয়েছে এবং চুরি যাওয়া টিউবওয়েল কলটিও অতি সত্য উদ্ধার করতে সক্ষম হবে।

RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -spot_img

জনপ্রিয় খবর

সাম্প্রতিক মন্তব্য