Tuesday, February 27, 2024
বাড়িখবরশীর্ষ সংবাদপানীয় জলের সমস্যায় নাজেহাল উপজাতি সহজ-সরল গিরিবাসী অংশের গুচ্ছগ্ৰাম বাসীরা, এমনটাই ঘটনা...

পানীয় জলের সমস্যায় নাজেহাল উপজাতি সহজ-সরল গিরিবাসী অংশের গুচ্ছগ্ৰাম বাসীরা, এমনটাই ঘটনা অভিযোগ রাজ্যের উপজাতি কল্যাণ দপ্তরের মন্ত্রীর নিজ নির্বাচনী কেন্দ্রে

পানীয় জলের সমস্যাটি যেন বংশপরম্পরা অভিশাপের মতো হয়ে দাঁড়িয়েছে তাদের বর্তমানে। অভিযোগ, সময়মতো ডি.ডব্লিও.এস দপ্তর পাইপ লাইন কিংবা একমাত্র ভরসা গাড়ি যুগে এলাকায় সময় মতো জল প্রদান করে না। এমনটাই ঘটনা প্রত্যক্ষ করা গেল সোমবার ২৯ কৃষ্ণপুর বিধানসভা কেন্দ্র অর্থাৎ মুঙ্গিয়াকামী আর.ডি ব্লকের অধীনস্থ রঙ্গিয়াটিলা গুচ্ছগ্রামে২০০৩ সালে জাতিগত দাঙ্গার শেষ লগ্নে তেলিয়ামুড়া মহকুমার বিভিন্ন দূর-দুরান্ত প্রত্যন্ত এলাকা গুলি থেকে জনজাতি অংশের মানুষজনেরা সরকারি বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি যেমন বিশুদ্ধ পানীয় জলের ব্যাবস্থা, রাস্তাঘাটের ব্যাবস্থা, শিক্ষা ব্যাবস্থা, খাদ্য সামগ্রী ব্যাবস্থা সহ বিভিন্ন প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা হাতের নাগালে পাওয়ার জন্য চাকমাঘাট রঙ্গিয়াটিলা গুচ্ছগ্রামে পূর্বপুরুষদের ভিটেমাটি ত্যাগ করে এসেছিল তৎকালীন সময়ে প্রায় তিন শতাধিক পরিবার। সে সময় সরকারি ভাবে ভিটেমাটি ত্যাগ করে আসা পরিবার গুলির মধ্যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল মৌলিক অধিকার গুলি মধ্যে যে যে অধিকার গুলি রয়েছে সবগুলি হাতের নাগালে পাওয়া যাবে। সেই প্রতিশ্রুতি অনুসরণ করে তেলিয়ামুড়া মহকুমার নোনাছড়া, কাঁকড়াছড়া, হলুদিয়া সহ বিভিন্ন প্রত্যন্ত এ.ডি.সি ভিলেজ গুলি থেকে প্রায় তিন শতাধিক পরিবার পূর্ব পুরুষদের ভিটেমাটি ত্যাগ করে রঙ্গিয়াটিলা গুচ্ছগ্রামে এসে স্বপরিবার নিয়ে বসবাস শুরু করেন। তৎকালীন সময় ক্ষমতাসীন ছিল সিপিআইএম দল। কয়েক মাস পরেই সরকারি প্রতিশ্রুতি গুলি ওই এলাকার বসবাসকারী জনজাতি অংশের মানুষদের স্বার্থে কার্যকারী না হওয়াতে অনেক মানুষজনেরা সরকারিভাবে গড়ে তোলা নতুন ভিটেমাটি ছেড়ে পুরানো ভিটেমাটি’তে চলে যেতে বাধ্য হয়েছিল।
একদিকে যেমন কাজকর্মের অভাব অন্যদিকে সংসার চালাতে তাদের হিমশিম খেতে হচ্ছিল। তারপরেও এই দুঃখ কষ্টের মধ্যে রয়ে গিয়েছে প্রায় কয়েক শতাধিক পরিবার। ইদানিং শুখা মরসুম শুরু হতেই ওই এলাকায় তীব্র পানীয় জলের সঙ্কট দেখা দিয়েছে। পানীয় জলের সংকট দূরীকরণে নির্বিকার সংশ্লিষ্ট প্রশাসন। এদিকে বর্তমানে দ্বিতীয় বার বিজেপি সরকার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে রাজ্যে। ২৯ কৃষ্ণপুর বিধানসভা কেন্দ্রের গণদেবতাদের ভোট দানের ফলে বিকাশ দেববর্মা বিজেপি দলের পক্ষে জয়ী হয়েছে। এলাকাবাসীদের অভিমত, বিকাশ দেববর্মা জয়ী হয়ে বর্তমানে উপজাতি কল্যাণ দপ্তরের মন্ত্রী পদে আসীন রয়েছেন। কিন্তু জনজাতি অংশের মানুষদের কথা মাথায় রেখে মন্ত্রী বাহাদুর ওই এলাকায় পানীয় জলের সঙ্কট দূরীকরণে কোন ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি , ফলে ওই এলাকায় বসবাসকারী উপজাতি অংশের মানুষজনদের মধ্যে চাপা ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে। একবারের জন্যেও মন্ত্রী বাহাদুর ওই এলাকা পরিদর্শনে আসেনি বলে চাপা গুঞ্জন সাধারণ বঞ্চিত উপজাতি মানুষজনদের মধ্যে।

RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -spot_img

জনপ্রিয় খবর

সাম্প্রতিক মন্তব্য