Monday, March 4, 2024
বাড়িখবরশীর্ষ সংবাদমুঙ্গিয়াকামী থানা পুলিশের হাতে আটক বিপুল পরিমাণে শুকনো গাঁজা। ঘটনা বুধবার বিকেল...

মুঙ্গিয়াকামী থানা পুলিশের হাতে আটক বিপুল পরিমাণে শুকনো গাঁজা। ঘটনা বুধবার বিকেল নাগাদ মুঙ্গিয়াকামী থানা এলাকার ৪১ মাইল এলাকায়।

তেলিয়ামুড়া থানার পুলিশ যখন শীত ঘুমে এবং ট্রাফিক ইউনিট যখন গরুর গাড়ি থেকে তোল্লা আদায়ে ব্যাস্ত তখন মুঙ্গিয়াকামী থানা পুলিশের হাতে আটক বিপুল পরিমাণে শুকনো গাঁজা। ঘটনা বুধবার বিকেল নাগাদ মুঙ্গিয়াকামী থানা এলাকার ৪১ মাইল এলাকায়। ঘটনাস্থলে তেলিয়ামুড়া মহকুমা পুলিশ আধিকারিক। ঘটনার বিবরণ দিয়ে তেলিয়ামুড়া মহকুমা পুলিশ আধিকারিক প্রসূন কান্তি ত্রিপুরা জানান,,,, মুঙ্গিয়াকামী থানার পুলিশ উক্ত থানা এলাকার ৪১ মাইল এলাকায় বিশেষ নাকা চেকিং-এ বসে। তখন TR01E2409 নম্বরের একটি যাত্রীবাহী বোলেরো গাড়ি আগরতলার দিক থেকে আমবাসা’র দিকে যাবার পথে মুঙ্গিয়াকামী থানার পুলিশ উক্ত থানা এলাকার ৪১ মাইল এলাকায় সন্দেহবশত আটক করে এবং গাড়িটিতে তল্লাশি চালায়। পুলিশ গাড়িটিতে তল্লাশি চালিয়ে মোট ২১৫ কেজি শুকনো গাঁজা বাজেয়াপ্ত করতে সক্ষম হয়। সেই সঙ্গে আটক করা হয় গাড়িতে থাকা কাঁকড়া বন থানা এলাকার ৩ যুবক যথাক্রমে টিটন মিয়া, বুলু দাস এবং রুবেল হোসেন’কে। পরবর্তীতে ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় তেলিয়ামুড়া মহকুমা পুলিশ আধিকারিক প্রসূন কান্তি ত্রিপুরা। তিনি জানিয়েছেন,, বাজেয়াপ্তকৃত গাঁজা গুলির আনুমানিক বাজার মূল্য প্রায় তিন লাখ পঁচিশ হাজার টাকা হবে বলে প্রাথমিক অনুমান। তবে যাই হোক,, তেলিয়ামুড়া থানার পুলিশ এবং তেলিয়ামুড়া ট্রাফিক ইউনিটের কর্তব্য পালন নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। কেননা হাওয়াই বাড়ি এলাকায় নাকা চেকিং থাকা সত্ত্বেও তেলিয়ামুড়া থানার অদক্ষ এস.পি.ও জওয়ানদের খামখেয়ালি পনার কারণেই মূলত এ দশা। আর তেলিয়ামুড়া ট্রাফিক ইউনিটের কর্মীরা ব্যাস্ত গরুর গাড়ি থেকে তোল্লা আদায় করতে।।

RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -spot_img

জনপ্রিয় খবর

সাম্প্রতিক মন্তব্য