Wednesday, July 24, 2024
বাড়িখবররাজ্যইন্টার লোকিউটরের সাথে তিপ্রামথার নেতৃত্বদের বৈঠক

ইন্টার লোকিউটরের সাথে তিপ্রামথার নেতৃত্বদের বৈঠক

শান্তি আলোচনা নয়, জনজাতিদের সার্বিক উন্নয়নে সাংবিধানিক দাবী আদায়ই লক্ষ্য তিপ্রা মথার ।মঙ্গলবার ইন্টারলোকিউটরের সাথে বৈঠক শেষে এই কথা জানান মথা সুপ্রিমো প্রদ্যুৎ কিশোর দেব বর্মন।অবশেষে দীর্ঘ আট মাস বাদে কেন্দ্রীয় সরকারের মধ্যস্থতাকারী নিকট উপজাতিদের সার্বিক কল্যাণে ষোল দফা দাবি সনদ পেশ করেছে তিপ্রা মথা দল মঙ্গলবার সকালে রাজ্য অতিথিশালায় কেন্দ্রীয় সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় উত্তর পূর্বাঞ্চলীয় পরামর্শদাতা একে মিশ্রের সাথে মত পনের সদস্যের এক প্রতিনিধি দল বৈঠকে মিলিত হয় তিপ্রামথা দলের নেতৃত্বে ছিলেন প্রদ্যুৎ কিশোর দেব বর্মন , এছাড়া প্রতিনিধি দলের অন্যান্য সদস্যদের মধ্যে বিরোধী দলনেতা অনিমেষ দেববর্মা এডিসির চেয়ারম্যান জগদীশ দেববর্মা সিইএম মথার রাজ্য নেতৃত্ব রাজেশ্বর দেববর্মা, প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন। এদিন তিপ্রা মথা প্রতিনিধি দলের প্রায় ৩৫ মিনিট বৈঠক হয় বৈঠকে জনজাতিদের সার্বিক স্বার্থে ষোল দফা দাবি ইন্টারলুকিয়েটর একে মিশ্রের কাছে তুলে ধরে তিপ্রা মথার সুপ্রিম প্রদ্যুৎ কিশোর দেব বর্মন। এই ষোলো দফা দাবির মধ্যে উল্লেখযোগ্য দাবিগুলি হলো সংবিধানের 1 এবং 2 নম্বর ধারা মতে ইউনিয়ন টেরিটরি সংবিধানের ২৪৪ এ ধারা মতে স্টেট বিধানসভায় জনজাতিদের জন্য ৫০ শতাংশ আসন সংরক্ষণ এলাকায় ইনার লাইন পারমিট, কেন্দ্র থেকে সরাসরি অর্থ প্রদান, পুলিশ নিয়োগের ক্ষমতা প্রদান প্রভৃতি। জানা গেছে তিপ্রা মথা দলের উত্থাপিত দাবি গুলি ঘটিয়ে দেখার আশ্বাস দেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উত্তর পূর্বাঞ্চলের পরামর্শদাতা একে মিশ্র। এদিন দীর্ঘ বৈঠক ছেড়ে বেরিয়ে এসে বাইরে অপেক্ষমান সাংবাদিকদের তিপ্রা মথা সুপ্রিমো প্রদ্যুৎ কিশোর দেব বর্মন জানান ইন্টার লুকিয়েটরের সাথে পুরনো ইস্যু নিয়েই কথা হয়েছে এখন জনজাতিদের ভবিষ্যৎ সুনিশ্চিত করতে কেন্দ্রীয় সরকার কি পদক্ষেপ গ্রহণ করে সেটাই দেখার বলে জানান তিনি।সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে মথা সুপ্রিমো আরো জানান গ্রেটার তিপ্রাল্যান্ড তাদের প্রধান দাবি এটা ত্রিপুরা ফাইনাল সলিউশন এই দাবির সংবিধানের বহির্ভূত নয়, তিনি আরো জানান শান্তি আলোচনা নয়, জনজাতিদের কল্যাণের দাবি পূরণই তাদের প্রধান লক্ষ্য। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে বিজেপি আইপিএফটি দ্বিতীয় জোট সরকার শপথ গ্রহণের সময় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং সর্বভারতীয় বিজেপি সভাপতি জেপি সামনেও একই দাবি পেশ করেছিলেন তিত্রা-মথা সুপ্রিমো। এরপর দীর্ঘ আট মাস বাদে মঙ্গলবার পুনরায় একই দাবি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধির কাছেও উত্থাপন করে তিপ্রামথা সুপ্রিমো। দাবি আদায়ের লিখিত প্রতিশ্রুতি চেয়েছেন তিনি। কেন্দ্রীয় সরকার সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে কি ভূমিকা গ্রহণ করে সেটা এখন দেখার। দাবি আদায়ে কেন্দ্রীয় সরকারের সুস্পষ্ট এবং লিখিত সম্মতি পেলেই রাজ্য মন্ত্রিসভায় যোগ দিতে পারে তিপ্রামথাদল।

RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

5 × 4 =

- Advertisment -spot_img

জনপ্রিয় খবর

সাম্প্রতিক মন্তব্য