Tuesday, April 16, 2024
বাড়িখবরশীর্ষ সংবাদখোয়াই পুর পরিষদের এডুকেশন স্টেন্ডিং কমিটির উদ্যোগে পুর এলাকার বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার...

খোয়াই পুর পরিষদের এডুকেশন স্টেন্ডিং কমিটির উদ্যোগে পুর এলাকার বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার মান খতিয়ে দেখতে বিভিন্ন স্কুলগুলি পরিদর্শন করেন

খোয়াই প্রতিনিধি ১৩ই সেপ্টেম্বর.. বুধবার দুপুরে খোয়াই পুর পরিষদের এডুকেশন স্ট্যান্ডিং কমিটির উদ্যোগে খোয়াই পুর এলাকার বিভিন্ন স্কুলগুলি পরিদর্শন করেন। এই দিন স্কুলগুলি পরিদর্শনের অভিযানে উপস্থিত ছিলেন খোয়াই পুর পরিষদের এডুকেশন স্ট্যান্ডিং কমিটির সভাপতি তথা কাউন্সিলর মৃত্যুঞ্জয় নাথ শর্মা, কমিটির সদস্য কাউন্সিলর পঙ্কজ রাউৎ, সদস্যা পূজা দাস, রুমা ধর ঘোষ ও প্রীতি মজুমদার। এইদিন স্কুলগুলি পরিদর্শনের অভিযানে প্রথমেই খোয়াই পূর্ণিমা স্কুলে পরিদর্শন করেন পরবর্তীতে একে একে খোয়াই সরকারি দ্বাদশ শ্রেণী বালিকা বিদ্যালয় খোয়াই সরকারি ইংরেজি মাধ্যম বিদ্যালয় সহ বেশ কয়েকটি স্কুলে পরিবেশন করেন। পরিদর্শন কালে পর পরিষদের এডুকেশন স্ট্যান্ডিং কমিটির নজরে বিদ্যালয় গুলির পরিকাঠামো গত কিছু ত্রুটিবিচ্যুতী পরিলক্ষিত হয় কারণ এই অভিযান কালে পুর পরিষদের স্ট্যান্ডিং কমিটি বিদ্যালয়ের প্রত্যেকটি শ্রেণীকক্ষে যান এবং প্রত্যেক ছাত্র-ছাত্রীদের সঙ্গে বিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করেন তার মধ্যে থেকে উঠে আসে স্কুলগুলির পরিকাঠামগত এবং কিছু ইচ্ছাকৃত সমস্যাগুলি উঠে আসে। তারমধ্যে বিশেষ পরিলক্ষিত হয় সরকারি দ্বাদশ শ্রেণী বালিকা বিদ্যালয়ে ছাত্রীরা অভিযোগ করেন রাজেশ দাস ও ডেভিড দেববর্মা নামে দুই বিষয় শিক্ষক স্কুলে আসেন না এবং সঠিকভাবে ক্লাস করেন না। তাছাড়া এই দিন অভিযানে খোয়াই সরকারি ইংরেজি মাধ্যম দ্বাদশ শ্রেণী বিদ্যালয়ে শ্রেণিকক্ষ গুলির খুবই দুরবস্থার ও নোংরা পরিলক্ষিত হয় ।এই পরিবেশের মধ্যেই ছাত্র-ছাত্রীরা পঠন-পাঠন চালিয়ে যাচ্ছে। দুই স্কুলের প্রধান শিক্ষকদের এই সমস্যাগুলো নিয়ে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করলে দুই স্কুলের প্রধান শিক্ষক গণ স্কুলের গুন কীর্তন ছাড়া আর কিছুই বললেন না ।বরং সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব এড়িয়ে যেতে লক্ষ্য করা গেছে, অথচ খোয়াই সরকারি ইংরেজি মাধ্যম স্কুলটি সম্পূর্ণ সিসিটিভি প্রদান করা আছে, তাছাড়া সরকারি বালিকা বিদ্যালয় ও ইংরেজি মাধ্যম বিদ্যালয়ে স্কুল পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য সরকারি কর্মচারী ও নিয়োগ করা আছে কিন্তু স্কুলগুলির শ্রেণিকক্ষ গুলা এত নোংরা সেদিকে প্রধান শিক্ষক গণের একেবারেই কোন নজর নেই। অন্যদিকে রাজ্য সরকার তথা কেন্দ্রীয় সরকার উন্নত শিক্ষা ও গুণগত শিক্ষার জন্য প্রতিবছর কোটি কোটি টাকা প্রদান করছেন যাতে করে রাজ্যের তথা খোয়াই এর ছাত্র-ছাত্রীরা উচ্চশিক্ষিত হয় কিন্তু একাংশ শিক্ষক ও অশিক্ষক গণ কাজের ফাঁকি দিয়ে প্রতিমাসের মোটা অংকের মাইনে গুনে নিচ্ছেন। সরকারি দ্বাদশ শ্রেণী বালিকা বিদ্যালয়ের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রীরা অভিযোগ করেন পলিটিক্যাল সায়েন্সের শিক্ষক রাজেশ দাস একদিনও ক্লাস করেননি অথচ সামনে তাদের পরীক্ষা কি পরীক্ষা দেবেন তারা ভেবে পাচ্ছে না যথারীতি ইংরেজি মাধ্যম বিদ্যালয়ের শিক্ষক বেলা দুটোর সময় স্কুলে আসেন এই বিষয়ে স্কুলের প্রধান শিক্ষক সঠিকভাবে জানেনই না এই বিষয়টি বলে জানিয়েছেন। খোয়াই পুর পরিষদের এডুকেশন স্ট্যান্ডিং কমিটির যে উদ্যোগ সেই উদ্যোগকে খোয়াইয়ের শুভবুদ্ধি সম্পন্ন জনগণ অনেকটাই সাধুবাদ জ্ঞাপন করেছেন খোয়াই এস আপামোর জনগণ খোয়াই পুর পরিষদের এডুকেশন ষ্ট্যান্ডিং কমিটি এইরকম অভিযান প্রতি মাসে জারি রাখার আহ্বান রাখেন। যদিও এই কমিটির সভাপতি মৃত্যুঞ্জয় নাথ শর্মা সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বলেন এইরকম অভিযান খোয়াই পুর পরিষদের অন্তর্গত প্রতিটি বিদ্যালয় ও প্রাক-প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রতি মাসে খোঁজখবর নেওয়া হবে। যাতে করে স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াশোনা ক্ষেত্রে কোন ধরনের ব্যাঘাত না ঘটে তার জন্য দৃষ্টি রাখবেন বলে জানান পুরো কাউন্সিলর মৃত্যুঞ্জয় নাথ শর্মা।

RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -spot_img

জনপ্রিয় খবর

সাম্প্রতিক মন্তব্য