Thursday, May 30, 2024
বাড়িখবররাজ্যবিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন নিয়ে তীব্র ক্ষোভ বাজার ব্যবসায়ী ও স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে

বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন নিয়ে তীব্র ক্ষোভ বাজার ব্যবসায়ী ও স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে

আগরতলা সিদ্ধি আশ্রমস্থিত বাজারটি নিয়ে বহু বিতর্ক রয়েছে। জানা গেছে এক ব্যক্তির জোত জমির উপর এই বাজারটি রয়েছে। কিছুদিন আগে কোর্টের নির্দেশে সিদ্ধি আশ্রম বাজারের এই জোত জমি দখল করার নির্দেশ পেয়েছেন জায়গার প্রকৃত মালিক। কিন্তু তার ব্যক্তিগত জমির ওপর যারা ব্যবসা করে আসছেন দীর্ঘদিন ধরে, তারা বাজার থেকে ভিটেমাটি ছেড়ে যেতে নারাজ। এ নিয়ে কোর্টে বাজার ব্যবসায়ীদের তরফ থেকে মামলা দায়ের করা হয়েছে। পাশাপাশি জায়গার প্রকৃত মালিকের সাথেও কথাবার্তা চলছে বাজার ব্যবসায়ীদের। জানা গেছে এই জায়গা ছেড়ে দেওয়ার জন্য বাজার ব্যবসায়ীরা জায়গার মালিকের কাছ থেকে কিছু সহযোগিতা এবং আর্থিক সেটেলমেন্ট চেয়েছেন। তাছাড়া আবারও নতুন করে এই জায়গায় ভিটে নিতে ইচ্ছুক অনেক ব্যবসায়ীরাই। এ নিয়ে তাদের সাথে প্রাথমিক কিছু কথাবার্তা হয়েছে জায়গার মালিকের এবং এ নিয়ে একটি এগ্রিমেন্ট হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাজার ব্যবসায়ীরা। কিন্তু এগ্রিমেন্ট হয়ে যাবার পর জায়গার মালিক আর তাদের সাথে যোগাযোগ করছেন না এমনটাই অভিযোগ বাজার ব্যবসায়ীদের। এরমধ্যে জায়গার মালিক আবারো কোর্টে আবেদন করেন তার জায়গায় থেকে যারা বিদ্যুৎ সংযোগ নিয়েছেন তাদের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার জন্য। হাইকোর্ট থেকে এই নির্দেশ পাঠিয়ে দেওয়া হয় বিদ্যুৎ নিগমের অফিসে। বিদ্যুৎ নিগমের তরফ থেকে বকেয়া বিল আদায় করার জন্য কিছুটা সময় নেওয়া হয়েছিল। ১৪ জুনের মধ্যে বকেয়া বিল আদায় করার পর এই বাজারের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হবে তেমনটাই ছিল নির্দেশ। মঙ্গলবার সেই কোর্টের নির্দেশ অনুসারে বাজারের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে শুরু করে বিদ্যুৎ নিগমের কর্মীরা। বাজারের এই বিদ্যুৎ সংযোগের সাথে যুক্ত রয়েছে এস টি লাইন। ফলে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হতেই গোটা এলাকার বিদ্যুৎ পরিষেবা বন্ধ হয়ে যায়। আর এনিয়ে তীব্র ক্ষোভে ফেটে পড়ে বাজার ব্যবসায়ী সহ স্থানীয় এলাকার বাসিন্দারা। তাদের দাবি কোন ধরনের নোটিশ ছাড়াই এভাবে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করা সম্পূর্ণ বেআইনি। হাইকোর্টের নির্দেশ কে মান্যতা দিয়ে এলাকায় যাদের বৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ রয়েছে তাদেরকে নোটিশ করা উচিত ছিল বলে অভিমত স্থানীয় বাসিন্দাদের। তাছাড়া বিদ্যুৎ লাইন কাটা হবে সে ব্যাপারে কোন ধরনের মাইকিং করা হয়নি বলেও অভিযোগ স্থানীয় বাসিন্দাদের। এক্ষেত্রে প্রশাসনিক হস্তক্ষেপ দাবি করলেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এদিকে এই বিশৃংখলার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যায় সংশ্লিষ্ট থানার পুলিশ। তাছাড়া ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিল পুলিশের ভিজিল্যান্স টিম। ভিজিলেন্স টিমের আধিকারিক কথা বলেছেন স্থানীয় বাসিন্দাদের সাথে। পরবর্তী সময় স্থির হয় আপাতত বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হবে না। স্থানীয় ক্লাব এবং বাজার কমিটির সাথে কথা বলা হবে। স্থানীয় ক্লাব এবং বাজার কমিটির সাথে কথা বলে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার বিষয়টির ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -spot_img

জনপ্রিয় খবর

সাম্প্রতিক মন্তব্য