Tuesday, March 5, 2024
বাড়িখবরশীর্ষ সংবাদঅবশেষে খোয়াই ইংরেজি মাধ্যম স্কুলের নাম টিকে ছাত্র-ছাত্রীদের দ্বারা কলঙ্কিত করার পর...

অবশেষে খোয়াই ইংরেজি মাধ্যম স্কুলের নাম টিকে ছাত্র-ছাত্রীদের দ্বারা কলঙ্কিত করার পর হুশ ফিরলো স্কুল কর্তৃপক্ষের ।স্কুলে নিষিদ্ধ হলো মোবাইল ব্যবহার।

খোয়াই প্রতিনিধি ২৮ শে আগস্ট….কথায় বলে ঠেলার নাম বাবাজি।ঠেলায় না পড়লে বিড়াল নাকি গাছে ওঠে না।এই প্রবাদ বাক্যটাই অবশেষে মিল খেল খোয়াই সরকারি ইংরেজি মাধ্যম বিদ্যালয়ের সাথে। গত কিছু দিন আগে খোয়াই ইংরেজি মাধ্যম বিদ্যালয়ের একাদশ শ্রেণির কিছু ছাত্র-ছাত্রীরা মিলে স্কুলের ক্লাসরুমে ব্যবিচারিতা করার কিছু ভিডিও ভাইরাল হয়ে পড়ে।আর তাকে কেন্দ্র করে ত্রিপুরা ভবিষ্যৎ পত্রিকায় পর পর দুটি খবর বের হয় প্রথম খন্ড এবং দ্বিতীয় খন্ড হিসেবে।আর তাতে করে স্কুলের ভিতর চলাকালীন বিভিন্ন ব্যভিচারিতায় ছাত্র-ছাত্রীরা লিপ্ত তার খবর প্রকাশ হতেই সমস্ত খোয়াই মহকুমা জুড়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। শুধু তাই না এই ধরনের ব্যভিচারিতা স্কুলে নাকি বিগত বেশ কয়েক বছর ধরে চলে আসছিল তা আগে প্রকাশ পায়নি বলেও মন্তব্য করেন অনেকে। ঠিক একই রকমের ব্যভিচারিতার ভিডিও ইতিমধ্যে প্রকাশ হতেই খোয়াই মহকুমা জুরে হই চই শুরু হয়ে যায়।তাতে করে অনেকের মুখ খুলতে থাকে যে এই ধরনের ঘটনা নতুন কিছু নয় এমন অনেক ঘটনা বিগত কয়েক বছর আগেও হয়েছে এই স্কুলে যার প্রমাণও আছে অনেকের কাছে অনেক এর পরও স্কুল কর্তৃপক্ষের টনক নরেনি। এর মধ্যে অনেকেই এখন কলেজ পড়ুয়াছাত্র-ছাত্রী রয়েছে যারা প্রথমার্ধে এই ধরনের নোংরামি করে স্কুলের নামটিকে কলঙ্কিত করে চলে যায় এবং এর বীজ পরের জেনারেশনের ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে পুঁতে দিয়ে যায় যার ফলে বিগত কয়েকদিন আগে এই ঘটনাটি ভাইরাল হয় যা স্কুলের নামটিকে কলঙ্কিত করল কয়েকজন ছাত্র ছাত্রী মিলে।আর তাতে করে এও বুঝা যাচ্ছে যে সমস্ত ছাত্র-ছাত্রী এই ধরনের ঘটনায় লিপ্ত তারা না পারবে নিজেদের শিক্ষার মানকে উন্নত করতে, না করতে দেবে অন্যান্য ছাত্র-ছাত্রীদেরকে। তাইতো এই ঘটনার সাথে জড়িত এক ছাত্রীর মা ঘটনাটি জেনে উক্তি করেন ঘটনাটি ভাইরাল হয়েছে তো কি হয়েছে ভালোই করেছে একজন ছাত্রীর মা হয়ে যদি এই ধরনের উক্তি করতে পারে তাহলেও ছাত্রীর মা ও সেই ছাত্রীটি কতটুকু নিচু মানসিকতার হতে পারে তা বলা বাহুল্য।আর এই ধরনের ছাত্র ছাত্রীরা অদূর ভবিষ্যতে সমাজের জন্য কলঙ্ক হয়ে দাঁড়াবে বলেও মন্তব্য করেন অনেকে। স্কুল ছুটি হলে অথবা টিফিন চলাকালীন সময়ে স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীরা স্কুল থেকে বেরিয়ে যে ধরনের অঙ্গ ভঙ্গিমা করে রাস্তায় দাঁড়িয়ে সহ পাঠীদের সাথে কথা বার্তায় ব্যস্ত থাকে তা চোখে পড়লে দুস্ত মত পথ চারীরা লজ্জায় চোখ নামিয়ে চলে যেতে বাধ্য হয় তাদের বেল্ল্যাপনার দৃশ্য দেখে। রাস্তায় দাঁড়িয়ে যদি এই ধরনের বেল্লাপনা করতে পারে তাহলে এটা বুঝে নিতে হবে স্কুলের ক্লাসরুমে কেমন ধরনের বেল্লাপনা হয়।তবে এটা কি স্কুল না পাখির বাসা তা বোঝাও মুশকিল ছাত্র-ছাত্রীদের কলরবে এলাকা বাসীরা তিতি বিরক্ত হয়ে গেছে।তবে এর জন্য দায়ী স্কুল কর্তৃপক্ষ একদিকে স্কুল কমিটি অন্যদিকে রাজনৈতিক দলের দুই সংগঠনের যাতা কলে পড়ে স্কুলের শিক্ষার মান দিন দিন নিম্নদিকে আর অন্যদিকে ছাত্র ছাত্রীরা এই ধরনের কাজে লিপ্ত তাতে ছাত্র-ছাত্রীদের উপর শিক্ষকদের শাসনের কোন বালাই নেই।আরেকটি প্রবাদ বাক্য আছে ছাল নেই কুকুরের নাম বাঘা এমনটাই হয়েছে ইংরেজি মাধ্যম বিদ্যালয়ের সাথে। বিগত কয়েক বছর আগে ক্লাস সিক্সের এক ছাত্র প্রাকৃতিক কাজ সেরে ক্লাসরুমে প্রবেশের আগে শিক্ষক থেকে ক্লাসে প্রবেসের জন্য অনুমতি চায় এই বলে (may I coming sir) উত্তরে সেই শিক্ষক বলেন আয় আয়! এই হচ্ছে ইংরেজি মাধ্যম বিদ্যালয়ের ইংরেজি শিক্ষা দেওয়ার নমুনা ।যে স্কুলের শিক্ষকরা ইংরেজির (ই) পর্যন্ত জানে না তাদের কাছ থেকে ছাত্র ছাত্রীরা কি আর ভালো ইংরেজি শিখবে আশা করা যায়।শেষে খোয়াই ইংরেজি মাধ্যম বিদ্যালয়ের নামটিকে ছাত্র-ছাত্রীদের দ্বারা কলঙ্কিত হবার পর স্কুল কর্তৃপক্ষের হুশ ফিরল। স্কুলের সুনাম বজায় রাখতে শেষে গত শুক্রবার সি বি এস সি পরিচালিত বিদ্যাজ্যোতি প্রকল্পের অন্তর্গত এই স্কুলের স্কুল ম্যানেজমেন্ট কমিটি এবং কোর কমিটি মিলে একটি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে যে স্কুলের ছাত্র ছাত্রীরা স্কুলের ভিতর মোবাইল ব্যবহার করতে পারবে না সেই মোতাবেক স্কুলের প্রধান শিক্ষক রতন দেববর্মা স্কুলের সমস্ত ছাত্র-ছাত্রীদেরকে জানিয়ে দেন এখন থেকে স্কুলের মধ্যে মোবাইল ফোন ব্যবহার করা যাবে না।এখন দেখার বিষয় এই হুলিয়া জারির পর ছাত্র-ছাত্রীরা কতটুক তা মেনে চলে।নাকি আবার কোন ভিডিও ভাইরাল হয় সেটাই লক্ষ্যনীয়। তবে অন্যান্য স্কুল গুলিতেও মোবাইল ব্যবহার নিষিদ্ধ নিষিদ্ধ করা দরকার বলে মনে করেন খোয়াই এর বুদ্ধিজীবী মহল।

RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -spot_img

জনপ্রিয় খবর

সাম্প্রতিক মন্তব্য