Sunday, April 21, 2024
বাড়িখবররাজ্যলোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে জনজাতি সাংগঠনিক শক্তি মারতে বি বিস্তারক নিয়োগ করছে...

লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে জনজাতি সাংগঠনিক শক্তি মারতে বি বিস্তারক নিয়োগ করছে শাসক

লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে রাজ্যের জনজাতি সংরক্ষিত বিধানসভা কেন্দ্রগুলিতে সাংগঠনিক শক্তি মাপতে ২০ জন বিস্তারক নিয়োগ করেছে বিজেপি। বৃহস্পতিবার বিজেপি রাজ্য দপ্তরে মনোনীত বিস্তারকদের প্রশিক্ষণ শিবির অনুষ্ঠিত হয়। উপস্থিত ছিলেন দলের রাজ্য সভাপতি রাজীব ভট্টাচার্য, মুখ্যমন্ত্রী প্রফেসর ডাক্তার মানিক সাহা, প্রাক্তন উপমুখ্যমন্ত্রী জিষ্ণু দেববর্মন, জনজাতি মোর্চার রাজ্য সভাপতি তথা মন্ত্রী বিকাশ দেববর্মা সহ অন্যান্যরা। ২০২৪ সালের দারগোড়ায় দেশের লোকসভা নির্বাচন। এই নির্বাচনেও বিজেপির মুখ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। নরেন্দ্র মোদিকে দেশের তৃতীয়বারের জন্য প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চান বিজেপি কর্মী সমর্থকরা ।আর এই লক্ষ্যকে সামনে রেখে সারাদেশেই মন্ডল এবং বুথ স্তরে সাংগঠনিক শক্তির পরিমাপ চলছে। রাজ্যেও এই প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে ।এরই অঙ্গ হিসেবে রাজ্যের ২০টি জনজাতি সংরক্ষিত বিধানসভা কেন্দ্রে দলের সাংগঠনিক শক্তির পরিমাপ করতে ২০ জনকে বিস্তারক হিসেবে নিয়োগ করেছে বিজেপি ।এই বিস্তারকদের কাজ হবে সংরক্ষিত ২০টি জনজাতি বিধানসভা কেন্দ্রে সংগঠনকে আরো শক্তিশালী করা ।এই বিস্তারক এবং জনজাতি সংরক্ষিত বিধানসভা কেন্দ্রের জনজাতি মোর্চার বিভিন্ন নেতৃবৃন্দদের নিয়ে শুক্রবার একদিনের প্রশিক্ষণ শিবিরের আয়োজন করা হয়েছে। বিজেপি রাজ্য দপ্তরে এই প্রশিক্ষণ শিবির অনুষ্ঠিত হয় ।প্রশিক্ষণ শিবিরে উপস্থিত ছিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি রাজীব ভট্টাচার্য ,মুখ্যমন্ত্রী প্রফেসর ডক্টর মানিক সাহা, প্রাক্তন উপমুখ্যমন্ত্রী জিষ্ণু দেব বর্মন, রাজ্য জনজাতি মোর্চার সভাপতি তথা মন্ত্রী বিকাশ দেববর্মা সহ অন্যান্যরা। এদিন বিজেপি রাজ্য সভাপতি রাজীব ভট্টাচার্য এই সংবাদ জানিয়েছেন।প্রশিক্ষণ শিবির প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী প্রফেসর ডাক্তার মানিক সাহা জানান, তিন রাজ্যে বড় জয় পাওয়ার পরও বিজেপি ঘরে বসে নেই।লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে সেবাই সংগঠন-এই মনোভাব নিয়ে বিভিন্ন কর্মসূচি শুরু হয়েছে। এর অন্যতম হলো রাজ্যের জনজাতি সংরক্ষিত বিধানসভা কেন্দ্রগুলিতে বিজেপির সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধি করা ।এই লক্ষ্যেই এদিনের বৈঠক বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী।বিজেপি সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবারের এই বৈঠকের পর শনিবার থেকেই রাজ্যের কুড়িটি উপজাতি সংরক্ষিত আসনে সাংগঠনিক কার্যকলাপ শুরু করে দেবেন মনোনীত বিস্তারকরা। সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধির পাশাপাশি তারা প্রত্যন্ত এলাকায় কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের বিভিন্ন জনহিত প্রকল্প গুলি মানুষের সামনে তুলে ধরবেন। আরো জানা গেছে ,এই বিস্তারকদের রিপোর্ট পাওয়ার পরই লোকসভা নির্বাচনে উপজাতি সংরক্ষিত আসন নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে রাজ্য বিজেপি।

RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -spot_img

জনপ্রিয় খবর

সাম্প্রতিক মন্তব্য